in

আগুন ধরে গেল বিমানযাত্রীর স্মার্টফোনে, বড় দুর্ঘটনার হাত থেকে রক্ষা!

হঠাৎ এক যাত্রীর স্মার্টফোনে আগুন ধরে যাওয়ায় জরুরিভাবে নেমে যেতে বাধ্য হয়েছেন উড়োজাহাজের সব যাত্রী আর কর্মীরা। তবে গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে জানা গেছে সৌভাগ্যজনক ভাবে এ ঘটনায় কোনো প্রাণহানির ঘটনা ঘটেনি বা গুরতর আহতও হয়নি।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আলাস্কা এয়ারলাইন্সের নিউ অরলিন্স থেকে সিয়াটেলগামী একটি বিমানের এক যাত্রীর স্মার্টফোনে আগুন ধরে যায়।

স্থানীয় সময় সোমবার সন্ধ্যায় এ দুর্ঘটনা ঘটে সিয়াটেল-টাকোমা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে। ওই বিমানে ১২৮ জন যাত্রী সহ ছয়জন ক্রু ছিলেন। বিমানবন্দরের মুথপাত্র পেরি কপার জানান, স্মার্টফোনটি পুড়ে পুরোপুরি বিকৃত হয়ে গিয়েছিল।বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ টুইটারে জানিয়েছে, বিমানের যাত্রীদের বাসে করে টার্মিনালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে এ ঘটনার পর। এতে কয়েকজন সামান্য আহত হয়েছেন।

তবে এ ঘটনায় বিমান চলাচলে কোনো প্রভাব পড়েনি বলে টুইটারে বলা হয়েছে। ওই ফ্লাইটে থাকা এক যাত্রী টুইটারে জানিয়েছে, আমার বিপরীত দিকে দুই/তিন সারি পেছনে বসেছিলেন ওই যাত্রী। হঠাৎ সেখান থেকে স্মোক মেশিনের মতো ধোঁয়া বেরুতে থাকে।
দক্ষতার সাথে যাত্রীদের শান্ত করে বিমান থেকে বের করে আনেন বিমানকর্মীরা। ওই বিমানযাত্রীর পাশে যিনি বসেছিলেন তিনি সামান্য আহত হয়েছেন বলে মনে হয়।

অবশ্য ঠিক কতজন আহত হয়েছেন তা টুইটার পোস্টে জানাননি তিনি।

What do you think?

Written by Rabeya Shathy

Leave a Reply

Your email address will not be published.

biman bangla

সিলেট থেকে এবার সরাসরি দুবাই যাবে বাংলাদেশ বিমান

বিমান ছিনতাই নিয়ে মত পাল্টালো ইউক্রেন, কিন্তু কেন?