in

বাংলাদেশের ওপর থেকে ট্রানজিট নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়েছে আরব আমিরাত

সংযুক্ত আরব আমিরাত ও বাংলাদেশের মধ্যে এতোদিন মহামারির কারণে দেওয়া নিষেধাজ্ঞার জন্যে কোনো বিমানের ফ্লাইট চলাচল করেনি। তবে সম্প্রতি সংযুক্ত আরব আমিরাত সে নিষেধাজ্ঞা সামান্য শিথিল করেছে। এখন থেকেবাংলাদেশীরা দুবাই হয়ে আমিরাতে প্রবেশ করতে পারবে ।

একইভাবে এই সুবিধা পাবেন আফগানিস্তান, ইন্দোনেশিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা, ভিয়েতনাম ও জাম্বিয়ার নাগরিকরাও। জানাগেছে এসব দেশের কোন নাগরিক যদি আমিরাতের কোন দেশে যেতে চান তাহলে তাদের আগে দুবাই ট্রানজিট হয়ে তারপর অন্যান্য দেশে যেতে পারবেন। সংযুক্ত আরব আমিরাত এসব দেশের নাগরিকদের ট্রানজিট হিসেবে দুবাইকে ব্যবহার করার অনুমতি দিয়েছে ।

করোনা ভাইরাস সনাক্ত করণের জন্য সব ধরনের সুবিধা রয়েছে জানাগেছে দুবাই বিমানবন্দরে। এই বিমানবন্দর দিয়ে হাটা চলা করার সময় যদি কারো শরীরে জ্বর থাকে তাহলে স্বয়ংক্রীয় ভাবে দেয়ালে লাগানো স্ক্রীনে সেটা ভেসে উঠবে। সাথে সাথে সেটি নজরে চলে আসবে আইন শৃং্খলা বাহিনীর। এরপর তার করোনা পরীক্ষা করে দেখা হবে।

সেজন্য যাত্রীদের দুবাই আসার ৭২ ঘণ্টার মধ্যে করোনার নেগেটিভ সনদ দেখাতে হবে। গতকাল মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানিয়েছে এমিরেটস এয়ারলাইন্স।

দুবাই-ভিত্তিক বিমান সংস্থা এমিরেটস জানিয়েছে, ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, নেপাল (ফ্লাইদুবাই পরিচালিত), নাইজেরিয়া ও উগান্ডা থেকে যোগ্য ভ্রমণকারীরা আমিরাতে যেতে অথবা ট্রানজিট নিতে পারবেন। আগামী ৫ আগস্ট থেকে এই সুবিধা পাবেন তারা।

তবে বাংলাদেশ, আফগানিস্তান, ইন্দোনেশিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা, ভিয়েতনাম ও জাম্বিয়ার যোগ্য ভ্রমণকারীরা কেবল ট্রানজিট রুট হিসেবে আমিরাত প্রবেশ করতে পারবেন। ৫ আগস্ট থেকে দেওয়া হবে এই সুবিধাও।

What do you think?

Written by Rabeya Shathy

Leave a Reply

Your email address will not be published.

দুই বছর দুপুরে ভাত খাননি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

কাতারের সাথে ভারতীয় তিন শহরের ফ্লাইট শুরু