in ,

ভ্রমনের মাঝেই খুঁজে নিন আয়ের উপায়

ভ্রমন যখন আপনার আয়ের উপায়

আপনি কি ঘুরতে ভালোবাসেন? অথবা কাজের খাতিরে সবসময় দেশ দেশান্তরে যেতে হয় আপনার? আপনার জীবন যদি হয় লাগেজ নির্ভরতার, স্বাভাবিকভাবেই অনেক প্রতিবন্ধকতারও মুখোমুখি হতে হয় আপনাকে। ভিনদেশের আবহাওয়া, জেটল্যাগের প্বার্শপ্রতিক্রিয়া তো আপনার জীবনেরই একটা অংশ। সাথে সাথে ব্যাংক ব্যালেন্সও কি আপনার চিন্তার কারন? সত্যিই, আর্থিক সক্ষমতা না থাকলে বেড়িয়েও শান্তি পাওয়া যায় না।

ঘুরে বেড়ানোর সাথে সাথে কিন্তু আয়ও করতে পারেন আপনি। উপার্জনের পথ খুলে দেয়া যায় অনেকগুলো উপায়ে। এমনই কিছু টিপস নিয়ে এই লেখাটি।

নিজের ক্রিয়েটিভিটিকে কাজে লাগান

ভালো মানের একটি ক্যামেরায় বিনিয়োগ করুন। পেশাদারদের মতো ছবি তুলুন, ভিডিও করুন ঘুড়ে বেড়ানোর পাশাপাশি। ফলাফল আপনাকে চমকে দিবে নিশ্চিতভাবেই।

নিজের ক্রিয়েটিভিটিকে কাজে লাগান

ভালো মানের একটি মুঠোফোনেও আপনি পেতে পারেন চমকে দেয়ার মত ফলাফল। ভালো মানের ক্যামেরা থাকলেই আপনি নিশ্চিত করতে পারেন চমৎকার উপার্জনের পথ।

ফোরেক্স লেনদেন

একটি ট্রেডিং বা লেনদেন অ্যাপ ডাউনলোড করে নিন আপনার মুঠোফোনে। শিখে নিন সফল লেনদেনের খুঁটিনাটি, উপভোগ করুন সফলতা। সুবিধা হচ্ছে, একটি বিশ্বাসযোগ্য ট্রেডিং পদ্ধতি আপনাকে সবসময়ই সাহায্য করবে, এমনকি আপনার ঘুমের সময়েও সে থাকবে তৎপর। মেটাট্রেডার অ্যাপ একটি ভালো উদাহরন এক্ষেত্রে, যার মাধ্যমে আপনি সময়পোযোগী সিদ্ধান্ত গ্রহনের ক্ষেত্রে পথ খুঁজে পাবেন।

হোটেল/হোস্টেলে কাজ করুন

ভ্রমনের অবসর সময়টা কাজে লাগান। কিভাবে? আশেপাশে খোঁজ নিয়ে দেখুন, আপনি যে হোটেলে থাকছেন সেখানে, বা তার আশেপাশের কোন হোটেল বা হোস্টেলে সাময়িক কাজের সুযোগ আছে কিনা। অনেক হোটেল বা হোস্টেলে এই সাময়িক কাজের সুযোগ দেয়, রিসিপশনে হতে পারে, বা কিচেনে। থাকা ও খাওয়ার বিনিময়ে সেখানে কাজের সুযোগ সৃষ্টি করা যায় কিনা খোঁজ নিয়ে দেখুন। অনেকটুকু অর্থই কিন্তু বেঁচে যাবে আপনার!

লেখা-লেখি জানেন?

আপনি কি লেখালেখিতে দক্ষ? বন্ধু বা আত্মীয় মহলে আপনার লেখার কদর আছে? এই দক্ষতাটাও কিন্তু আপনি কাজে লাগাতে পারেন। নিজের একটি ব্লগ বা ই-বুক খুলে নিন, লিখুন আপনার অবসর সময়েই। অনেক সহজ ও কার্যকরী এই পদ্ধতিটিই কিন্তু আপনার অর্থনৈতিক দুশ্চিন্তা অনেকাংশে কমিয়ে দিতে পারে!

লেখা-লেখি জানেন?

কী নিয়ে লিখবেন? এখানেই সবচেয়ে বড় মজাটা অপেক্ষা করছে আপনার জন্য – আপনার ক্ষেত্র সীমাহীন। লিখতে পারেন আপনার আগ্রহর বিষয়বস্তু নিয়ে, লিখতে পারেন আপনার অভিজ্ঞতার আলোকে। অথবা আপনার ভ্রমন বিষয়েই লিখুন না! মানসম্পন্ন হলে হাজারও ট্র্যাভেল এজেন্সী লুফে নিবে আপনার লিখাটি!

ডেলিভ্যারি ম্যান!

শুনতে খারাপ লাগছে? বহির্বিশ্বে কোন কাজকেই ছোট করে দেখার কোন সুযোগ কিন্তু নেই। কিছুটা সময় বাঁচিয়ে নিন আপনার কাজের লিস্ট থেকে। গাড়িতে সামান্য জায়গা আছে? কারো দরকারি কোন বস্তু সহজেই পৌঁছে দিতে পারেন কিছু অর্থের বিনিময়ে। মানুষের উপকারেও আসলেন, আপনার পকেটেও কিছু টাকা আসলো।

ইংরেজি শিখান

আন্তর্জাতিক ভাষা হিসেবে ইংরেজির কদর সারা বিশ্বেই। আপনি ইংরেজিতে ভালো? কিছুটা সময় বাঁচিয়ে নিন, স্থানীয় কোন প্রতিষ্ঠানে কাজ নিয়ে নিন ইংরেজি শিক্ষকের। টুরিস্ট বিশ্বে ইংরেজির গুরুত্ব অনেক, তাই অনেক দেশই যাদের প্রধান আয়ের উৎস পর্যটন, তারা কিন্তু ইংরেজি শিখতে চাইবেই।

ইংরেজি শিখান

আপনি সেই সুযোগটাই কাজে লাগাতে পারেন। করে দেখুন না, ভিনদেশীদের ইংরেজি শিখানোর মজাও পাবেন, মানুষের উপকারও হবে, আপনিও কামিয়ে নিতে পারবেন টু-পাইস!

সিজনাল কাজ খুঁজে নিন

যেখানে থাকছেন, আশেপাশে খোঁজ করলেই হয়তো পেয়ে যেতে পারেন সিজনাল কোন কাজ। কিছু মাসের জন্য তো অন্তত নিশ্চিন্ত হয়ে যেতে পারেন! স্থানীয় খামারে কাজ নিতে পারেন, বা ফল সংগ্রহের কাজ হতে পারে ভালো একটি আয়ের উৎস। অথবা অভিজ্ঞতা থাকলে আপনিও হয়ে যেতে পারেন স্কি ইন্সট্রাক্টর বা সামার ক্যাম্প কাউন্সিলর। থাকা খাওয়া নিয়ে অন্তত আর চিন্তা করতে হচ্ছে না আপনাকে।

ওয়ার্কিং হলিডে ভিসা

বিশ্বের অনেক দেশই কিন্তু টুরিস্টদের ওয়ার্কিং হলিডে ভিসা নিতে উৎসাহিত করে। অপেশাদার কোন কাজ খুঁজে নিন আপনার জাতীয়তা ও অভিজ্ঞতার আলোকে।  আপনি আয় করতে পারবেন, ঘুরতে পারবেন, অ্যাডভেঞ্চারের স্বাদও নিতে পারবেন। নতুন দেশ, সংস্কৃতি দেখার আনন্দ তো আছেই। আর কী চাই!

What do you think?

Written by Tamanna Reza

Leave a Reply

Your email address will not be published.

কোভিড-১৯ সংকট ভ্রমন শিল্পকে নিয়ে যাচ্ছে ২০ বছর পিছনে

কোভিড-১৯ সংকট ভ্রমন শিল্পকে নিয়ে যাচ্ছে ২০ বছর পিছনে

কেন আপনার ভ্রমণ করা উচিৎ?

কেন আপনার ভ্রমণ করা উচিৎ?